1. admin@jamunarbarta.com : যমুনার বার্তা : যমুনার বার্তা
  2. shohel.jugantor@gmail.com : যমুনার বার্তা : যমুনার বার্তা
বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ০১:১৯ পূর্বাহ্ন

আল জাজিরার বিরুদ্ধে ‘লিগ্যাল অ্যাকশন নেবেন’ জেনারেল আজিজ

  • প্রকাশ রবিবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ২৮ জন পঠিত

সম্প্রতি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলের এক অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন বাংলাদেশের সাবেক সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ৷ এক ঘণ্টার ওই অনুষ্ঠানে ডয়চে ভেলের বাংলা বিভাগের প্রধান খালেদ মুহিউদ্দীনের নানা প্রশ্ন ও তার বিরুদ্ধে উঠা নানা অভিযোগের জবাব দিয়েছেন জেনারেল আজিজ৷ আলোচনায় উঠে এসেছে আল জাজিরার তথ্যচিত্র, তার ভাইদের বিষয়ে নানা অভিযোগসহ বিভিন্ন প্রসঙ্গ৷

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে সেনাপ্রধান থাকাকালীন আজিজ ও তার ভাইদের নিয়ে একটি অনুসন্ধানী তথ্যচিত্র প্রকাশ করে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা৷ এ নিয়ে তখন তোলপাড় হয় বাংলাদেশে৷ এই তথ্যচিত্র প্রকাশের পর শুরুতে বিব্রত হয়েছিলেন বলে উল্লেখ করেন আজিজ আহমেদ৷ওই তথ্যচিত্র যখন প্রকাশ হয়, তখন তিনি যুক্তরাষ্ট্র সফরে থাকলেও সেখানে এর কোনো প্রভাব পড়েনি বলে দাবি করেন আজিজ আহমেদ৷

আল জাজিরার ওই তথ্যচিত্রে অভিযোগ করা হয়েছিল, ইসরাইল থেকে স্পাইওয়্যার ও সেনাবাহিনীর বিভিন্ন ক্রয় প্রক্রিয়ায় জেনারেল আজিজ প্রভাব খাটিয়েছেন৷

এ অভিযোগের বিষয়ে সঞ্চালকের প্রশ্নের উত্তরে জেনারেল আজিজ দাবি করেন কেনাকাটাগুলো যখন হয়, তখন সেনাপ্রধান হিসেবে এর সঙ্গে তার কোনো সম্পৃক্ততা ছিল না৷ যদিও তিনি দায়িত্ব নেওয়ার একদিন পর নজরদারি প্রযুক্তি ক্রয়ের স্বাক্ষর হয়। তার দাবি, প্রক্রিয়াগুলো আগেই সম্পন্ন হয়েছিল।

জেনারেল আজিজ আরও বলেন, ‘আমি চ্যালেঞ্জ করছি কেউ যদি কোনো একটা ‘এভিডেন্স’ দিতে পারে যে আমি বিজিবিতে থাকাকালে, আমি সেনাপ্রধান থাকাকালীন আমার কোনো ভাই বা আত্মীয়কে বিজিবি বা সেনাবাহিনীর কোনো আর্মস, ইক্যুইপমেন্ট, অ্যামুনেশন প্রক্রিউরম্যান্ট, কন্ট্রাক্ট দিয়েছি এটা যদি কেউ প্রমাণ করতে পারে আই উইল অ্যাকসেপ্ট অ্যানিথিং। আই অ্যাম রেডি। আই এম গিভিং এ চ্যালেঞ্জ।’

আল জাজিরার তথ্যচিত্রে জেনারেল আজিজ ও তার একজন কোর্সমেটের কথোপকথন ফাঁস করা হয়। এ নিয়ে প্রশ্নের জবাবে আজিজ আহমেদ দাবি করেন, ‘অডিওটি সঠিক নয়৷ ইট ওয়াজ এ কাট অ্যান্ড পেস্ট। ইট ওয়াজ টেম্পার্ড।…অনেক কিছু করা হয়েছে।’

এ বিষয়ে লিগ্যাল অ্যাকশন (আইনি পদক্ষেপ) নেওয়ার পরিকল্পনা করেছেন জানিয়ে জেনারেল আজিজ বলেন, ‘এতদিন আমি ইউনিফর্মে ছিলাম, এটার ব্যাপারে যদি আমি কোনো লিগ্যাল অ্যাকশন বা ব্যবস্থা নিতাম অনেকে প্রশ্ন করত যে আই এম এক্সারসাইজিং মাই অথরিটি৷ আই এম মিসইউজিং মাই পাওয়ার (ক্ষমতার অপব্যবহার)৷ আমি কিন্তু এখন ইউনিফর্মের বাইরে আসছি। আগামী জুনের ২৫ তারিখের পর আমার সম্পূর্ণ রিটায়ারম্যান্ট শুরু হবে৷ তখন আমি চিন্তা করব, হোয়াট কাইন্ড অব লিগ্যাল অ্যাকশন আই শুড টেক এগেইন্সট দিস কাইন্ড অব প্রোপাগান্ড অ্যান্ড আদার থিংস।’

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো বার্তা দেখুন
©২০১৫ ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Theme Customized By BreakingNews